চলবে 13 টি লোকাল ট্রেন, কবে থেকে জানুন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-করোনা আবহে দেশজুড়ে দীর্ঘ লকডাউন চলছে। যদিও আনলক পর্ব শুরু হয়ে গেছে। তবুও এখনো সবকিছু স্বাভাবিক গতিতে ফিরতে লাগবে সময় । বন্ধ হয়েছে রেস্তোরাঁ ,শপিংমল স্কুল-কলেজের দরজা । বন্ধ হয়েছে বিভিন্ন যানবাহন । বড় বাস থেকে শুরু করে ট্রেন বিমান সবকিছু।

কিন্তু আগামী মাসে বেশ কিছু ট্রেন চলতে পারে এমনটাই খবর রেলের তরফ থেকে । এই খবর সামনে আশাতে মিলেছে কিছুটা স্বস্তি । সাধারণ যাত্রীদের দীর্ঘদিন অপেক্ষা তাহলে বোধহয় এবার অবসান ঘটতে চলেছে। যাতায়াত হয়ত একটু হলেও স্বাভাবিক হবে। স্বাভাবিক গতিতে ফিরবে হয়তো শহর ।

আগামী মাসে অর্থাৎ পুজোর মাসে ১৩ টি বিশেষ ট্রেন চালানো দাবি নিয়ে রেল কে চিঠি লিখেছে পূর্ব রেল । এর পাশাপাশি জানিয়েছেন পুজোর মরসুমে অসংখ্য যাত্রীর চাহিদা থাকে ওই ১৩ টি ট্রেনের । ফলস্বরূপ এই বিপুল চাহিদার জন্য চালানো হোক ট্রেন এমনটাই দাবি পূর্ব রেলের। পুজোর মরসুমে যদি ট্রেন গুলো ঠিকঠাক মতন চলে তাহলে সেখান থেকে ২৩ কোটি টাকা আয় করতে পারবে রেল ।

দেশের এই আর্থিক সংকটের অবস্থায় রীতিমতো অনেক ক্ষয়ক্ষতি শি-কা-র- হয়েছে ভারতীয় রেল ।তাই একদিকে যাত্রী চাহিদা এবং অন্যদিকে রেলের আয়কে ফের চাঙ্গা করতে এরূপ সিদ্ধান্তে উপনীত হতে হয়েছে পূর্ব রেল কে এমনটাই সূত্রের খবর। ওই চিঠিতে জানান হাওড়া এবং শিয়ালদা থেকে ওই ১৩ টি ট্রেনর ব্যাপক চাহিদা থাকে । সে ট্রেন গুলি চালানোর অনুরোধ জানায় ।

এর পাশাপাশি জানানো হয় শুধুমাত্র দুর্গাপুজোয় নয় দুর্গাপুজোর পির কালীপুজো, ভাইফোঁটা সহ বিভিন্ন পুজো লেগে থাকবে আগামী মাসে। তাই আগামী মাসে যদি ট্রেন চালানো যায় তাহলে একটা বড় সংখ্যক টাকা আয় হবে রেলের ।অপেক্ষার আর বাঁধ টিকছে না। ফলে একে একে খুলতে থাকছে পর্যটন শিল্প গুলি। সে ক্ষেত্রে পর্যটন শিল্পের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার জন্য একমাত্র উপায় ট্রেন । আগামী মাস থেকে যদি কোন রকম ভাবে স্বাভাবিক গতিতে ট্রেন চলাচল শুরু করা যেতে পারে তাহলে পর্যটন শিল্পের উন্নতি এমনটাই বিস্বাস রেলের ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button