১৮৪ বছর বয়সেও মৃ’ত্যু হয় না বলে মৃ’ত্যুর আশা ছেড়েই দিয়েছেন এই বৃদ্ধ! তার এতো বছর বাঁচার রহস্যটা কি?

নিজস্ব প্রতিবেদন :- কথাতে আছে এই পৃথিবীতে জন্ম নিলে মৃ-ত্যু-র স্বাদ নিতে হবে। কিন্তু কেউ কেউ আবার মৃ-ত্যু-কে ভয় পায়। আবার কেউ কেউ এই ধ্রুব সত্য কে সহজে আপন করে নেয়। পরিবার পরিজন ছেড়ে রীতিমতো মায়া কাটিয়ে যেতে হয় পরলোকে । মৃ-ত্যু কারো কারো সুখের হয় আবার ,কারোর খুব বেদনাদায়ক হয়।

কিন্তু যদি এমন কোন ঘটনা ঘটে যে দীর্ঘ বছর ধরে বেঁচে আছে এমন এক ব্যক্তি যাকে এখনো পর্যন্ত গ্রাস করতে পারেননি মৃ-ত্যু ।আপনার সন্দেহ হতেই পারে কত আর বয়স হবে ? খুব জোর ১০০ বছর বা ১১০ বছর ? এর বেশি নয়। কিন্তু এমন এক ঘটনা সম্প্রতি নজরে এসেছে যা আপনাকে অবাক করে তুলবে।

১৮৩৫ সালে ৫ ই জানুয়ারি ব্যাঙ্গালোরে জন্মগ্রহণ করেন মহাশতা মুরাসির। বর্তমানে তিনি এখন জীবিত। কি বলছেন মশাই ? এখনো জীবিত? দীর্ঘ ১৮৪ বছর তার বয়স । রীতিমতো মৃ-ত্যু তাকে এখন অবধি ছুঁয়েও দেখতে পারেনি । সম্প্রতি এরকম একটা অবাক করা কান্ড আমাদের সামনে এসেছে। এ বিষয়ে তিনি জানান যে তাকে যমরাজ নিতে ভুলে গেছে বোধহয়। এমনকি তিনি নিজের চোখের সামনে তার ছেলেমেয়ে ,নাতি-নাতনি ও মৃ-ত্যু দেখেছে কিন্তু এখনো নিজে মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করেননি।

সুন্দর এই পৃথিবীতে মৃ-ত্যু যেন এক দুঃস্বপ্নের মতো । কিন্তু আবার এটি একটি ধারালো বাস্তব। সবাইকে একবার না একবার হলেও গ্রহণ করতে হয় মৃ-ত্যু-র স্বাদ। মেলে মুক্তি। কিন্তু এই বৃদ্ধা এখন অবধি পায়নি মৃ-ত্যু-র স্বাদ। তার ইচ্ছা পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ হিসেবে আন্তর্জাতিক সম্মান পাওয়া। এর আগে যদিও গ্রিনিস বুক ” এর ওয়ার্ল্ড রেকর্ড অনুযায়ী পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ হিসেবে ১২২ বছরে এক ব্যক্তির নাম উল্লেখ আছে।

কিন্তু এবার বোধহয় সেই ব্যক্তিকে ছাপিয়ে যাবেন এই বৃদ্ধা । এমনটাই মনে করছেন অনেকে । যদিও তার জন্ম কোন প্রমান পত্র পাওয়া যায়নি, তবে তিনি নিজে দাবি করেন তার বর্তমান বয়স ১৮৪ বছর । শেষ ১৯৭১ সালে ডাক্তার দেখিয়ে ছিলেন। তবে সেই ডাক্তার এখন আর বেঁচে নেই কাজেই তার জন্মের প্রমাণপত্র হিসেবে এখনো কোনো নথি আমাদের হাতে আসেনি।সম্প্রতি এ ঘটনাকে ঘিরে রীতিমত অবাক হওয়ার পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে নেটিজেনদের মধ্যে। এবং অনেকেই আরো বিস্তারিত জানতে চাইছি নেই বৃদ্ধার ব্যাপারে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন

Back to top button